‘প্রত্যেক উইঘুর মুসলমান প্রিয়জনের সঙ্গে পুনরায় একত্রিত হবে’ | সেরা নিউজ ২৪ ডটকম | SeraNews24.Com | সর্বদা সত্যের সন্ধানে
ইউএনওর আশ্বাসে ঘুরেও জুটলোনা কিছুই স্বেচ্ছাসেবক দলের কমিটি গঠন উপলক্ষে প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত দেশে আরও কমেছে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত রায়পুরের নবগঠিত ছাত্রলীগ কমিটির কার্যক্রম স্থগিত : কেন্দ্রীয় কমিটি ইংরেজি নববর্ষ উপলক্ষে পাটগ্রাম উপজেলার সর্বস্তরের জনসাধারণকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ পাটগ্রাম উপজেলা শাখার সভাপতি এম আর এইচ সরকার রাকিব  রায়পুরের রাসেল নিখোঁজ : সন্ধানে আত্মহারা পরিবার দহগ্রাম আঙ্গোরপোতার ইতিহাসে সবচেয়ে বড় ক্রিকেট আসরের পরিসমাপ্তি ৩০ ডিসেম্বর গণতন্ত্রের বিজয় দিবস পালন করবে আ.লীগ : ওবায়দুল কাদের করোনা মোকাবেলায় প্রণোদনা পরিকল্পনার নির্দেশ : প্রধানমন্ত্রী পাটগ্রাম রিপোর্টাস ক্লাবের আয়োজনে বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব মোঃ মোতাহার হোসেন এমপি মহোদয়ের ৭০তম জন্মদিন উদযাপন
‘প্রত্যেক উইঘুর মুসলমান প্রিয়জনের সঙ্গে পুনরায় একত্রিত হবে’

‘প্রত্যেক উইঘুর মুসলমান প্রিয়জনের সঙ্গে পুনরায় একত্রিত হবে’




চীনের জিনজিয়ান থেকে স্ত্রী-সন্তানকে মুক্ত করতে তিন বছর লড়াই করেছেন এক উইঘুর মুসলিম। দীর্ঘ অপেক্ষা শেষে প্রিয়জনকে কাছে পেয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক সাদ্দাম আবদুস সালাম সিডনিতে স্ত্রী নাদিলা উমায়ের এবং তিন বছর বয়সী সন্তান লুৎফির দেখা পান।

কূটনৈতিক সমঝোতার ভিত্তিতে পরিবারটিকে জিনজিয়ান ছাড়ার অনুমতি দেয় চীন। চীনা উইঘুর মুসলিম সংখ্যালঘু কমিউনিটির সদস্য উমায়ের। মুক্তি পাওয়ার আগ পর্যন্ত জিনজিয়ানে গৃহবন্দি ছিলেন তিনি।

সিডনি বিমানবন্দরে স্ত্রী-সন্তানের সঙ্গে সাক্ষাতের একটি আবেগময় ছবি শুক্রবার সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ করেন আবদুস সালাম। ২০১৭ সালে তার শিশু সন্তানের জন্ম হয়। তাকে প্রথমবারের মতো কাছে পেয়েছেন আবদুস সালাম। টুইটে তিনি বলেন, ধন্যবাদ অস্ট্রেলিয়া। ধন্যবাদ সবাইকে।

তিন বছরের বিচ্ছিন্নতার গল্প

প্রায় এক দশক ধরে অস্ট্রেলিয়ায় বসবাস করছেন আবদুস সালাম। ২০১৬ সালে তখনকার মেয়েবন্ধু উমায়েরকে বিয়ে করার জন্য চীন যান তিনি। বিয়ের পর কাজের জন্য ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে আসেন আবদুস সালাম। উমায়ের স্পাউস ভিসা পাওয়ার জন্য চীনে অপেক্ষা করছিলেন।

ওই বছরই সন্তানের জন্ম দেন উমায়ের। চীনের যাওয়ার জন্য আবদুস সালাম ভিসা চাইলে তা প্রত্যাখ্যান করে চীনা সরকার। সন্তান জন্ম দেওয়ার কিছুদিন পরই উমায়েরকে আটক করে চীনা কর্তৃপক্ষ। দুই সপ্তাহ পর তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। বাজেয়াপ্ত করা হয় তার পাসপোর্ট। করা হয় গৃহবন্দি।

আবদুস সালামের আবেদনের প্রেক্ষিতে লুৎফিকে স্বীকৃতি দেয় অস্ট্রেলিয়া। উমায়ের অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক নন। তা সত্ত্বেও গেল দু’বছরে বেশ কয়েকবার চীনের কাছে তাদের মুক্তি দেওয়ার জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে আহ্বান জানায় অস্ট্রেলিয়া।

ফেব্রুয়ারিতে চীনা কর্তৃপক্ষ জানায়, চীনের আইন, ওই দম্পতির বিয়েকে স্বীকৃতি দেয় না। উমায়ের নিজের ইচ্ছায় চীনে বসবাস করছেন। অস্ট্রেলিয়ার একটি টিভি অনুষ্ঠানে চীনা এক কর্মকর্তা এ দাবি করেন।

তারপরই, আবদুস সালাম একটি ভিডিও টুইটারে পোস্ট করেন। যেখানে উমায়েরকে বলতে দেখা যায়, ‘আমি চীন ত্যাগ করতে চাই, আমার স্বামীর সঙ্গে থাকতে চাই।’ উমায়েরের এ ভিডিওতে সময়, তারিখ সবই উল্লেখ করেন আবদুস সালাম।

যে খবর শোনার জন্য আবদুস সালাম-নাদিলা উমায়ের দম্পতি অপেক্ষা করছিলেন তা জানতে তাদের আরও ছয় মাস অপেক্ষা করতে হয়। বিবিসিকে তাদের আইনজীবী মিচেল ব্র্যাডলি জানান, চীন থেকে তাদের অস্ট্রেলিয়ায় আসার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে তা গেলো দু’মাস আগে জানতে পারি।

৪৮ ঘণ্টা বিমানভ্রমণ শেষে সিডনিতে স্ত্রী সন্তানেকে কাছে পান আবদুস সালাম। সাংহাই, হংকং, পোর্ট মোরেসবি থেকে ব্রিসবেন, সবশেষে সিডনিতে পৌঁছান উমায়ের এবং লুৎফি। অবিশ্বাস্য এ কাজের জন্য অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে ধন্যবাদ জানান আবদুস সালাম। পাশে থাকার জন্য আইনজীবী এবং গণমাধ্যমের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান তিনি।

‘সত্যিই এদিন পাবো কল্পনায়ও বিশ্বাস করতে পারিনি। আন্তরিকভাবে সবাইকে ধন্যবাদ জানাই, যারা আমাদের একত্রিত করতে কঠোর পরিশ্রম করেছেন। প্রত্যেক উইঘুর তার প্রিয়জন, পরিবারের সঙ্গে পুনরায় একত্রিত হবে, এ স্বপ্ন দেখি আমি। বলেন আবদুস সালাম।

মানবাধিকার সংগঠনগুলোর নিন্দা

মানবাধিকার সংগঠনগুলো বলছে, বন্দিশালায় উইঘুরসহ ১০ লাখ মুসলমানকে আটকে রেখেছে চীন। যদিও চীন এ দাবি অস্বীকার করছে। বেইজিং বলছে, তারা সন্ত্রাসবাদ এবং ধর্মীয় উগ্রবাদ মোকাবিলা করছে। ওইসব শিবিরে বন্দিদের রাজনৈতিক পুনঃশিক্ষা দেওয়া হচ্ছে।

অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়া, ব্রিটেন, যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপীয় কয়েকটি দেশসহ ৩৯টি রাষ্ট্র জাতিসংঘে একটি বিবৃতি পাঠায়। সেখানে জিনজিয়ানের বন্দিশালায় মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে তারা।

বলা হয়, ভয়াবহ মানবাধিকার লঙ্ঘনের বহু তথ্য প্রমাণ রয়েছে। বিবৃতিতে সুনিদিষ্ট কয়েকটি বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করা হয়। তার মধ্যে ধর্মীয় স্বাধীনতা, মুক্তভাবে চলাফেরা, মত প্রকাশ এবং উইঘুরদের সংস্কৃতির চর্চা হুমকিতে বলে উল্লেখ করা হয়।

৩৯ দেশের বিবৃতিতে আরও বলা হয়, উইঘুরসহ সংখ্যালঘু মুসলমানদের ব্যাপকভাবে নজরদারি করা হচ্ছে। জোরপূর্ব শ্রমে বাধ্য করা হচ্ছে, বন্ধ্যাকরণের মাধ্যমে জন্মনিয়ন্ত্রণ করছে বলেও তথ্য প্রমাণ রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...




Close(X)
Close(X)


Close(X)
Close(X)

সংবাদ খুজুন

ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিনঃ

 
সেরা নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম – SeraNews24.Com ☑️
পাবলিক গোষ্ঠী · 23,009 জন সদস্য

গোষ্ঠীতে যোগ দিন

প্রতিমুহূর্তের সংবাদ পেতে Like দিন অফিশিয়াল পেইজ এ।
নিউজ পোর্টাল: www.SeraNews24.Com
ফেসবুক গ্রুপ: http://bit.do/SN24FBGroup
ইউটিউব চ্যানেল: http://bi…
 

আজকের নামাজের সময়সূচি

ঢাকা, বাংলাদেশ।
রবিবার, ১৭ জানুয়ারি, ২০২১
ওয়াক্তসময়
সুবহে সাদিকভোর ৫:২৪
সূর্যোদয়ভোর ৬:৪৩
যোহরদুপুর ১২:০৮
আছরবিকাল ৩:৫৯
মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৩৪
এশা রাত ৬:৫৪







 About Us     Contact     Privacy & Policy     DMCA     Sitemap

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | সেরা নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ২০১৮

Design & Developed By Digital Computer Center
error: Content is protected !!