ইউএনও ওয়াহিদার অবস্থার উন্নতি : শঙ্কামুক্ত নয় | | সেরা নিউজ ২৪ ডটকম | SeraNews24.Com | সর্বদা সত্যের সন্ধানে
বিজ্ঞপ্তিঃ

দেশের জনপ্রিয় জাতীয় অনলাইন দৈনিক “সেরা নিউজ ২৪ ডটকম” এর সংবাদ সংগ্রহ করার জন্য জেলা-উপজেলা পর্যায়ে কর্মঠ, সৎ, সাহসী পুরুষ ও মহিলা সংবাদদাতা/প্রতিনিধি/বিশেষ প্রতিনিধি নিয়োগ চলছে। যোগাযোগঃ 01727747903 ইমেইলঃ [email protected]

রায়পুরে সিএনজির ওভারটেকিং এ নদীতে মালবাহী অটো জননেত্রী শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন আজ লালমনিরহাটের পাটগ্রামে এবি পার্টির তৃণমূলে মুক্ত সংলাপ অনুষ্ঠিত করোনায় চলে গেলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বিকাশ হ্যাক প্রতারনার টাকা উদ্ধার ও গ্রাহকের নিকট হস্তান্তর : ওসি আবদুল জলিলের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ছাত্রাবাসে ধর্ষণের রাতের বর্ণনায় কাঁদলেন স্বামীর সঙ্গে বেড়াতে আসা তরুণী হাইমচর চরভৈরবী মেঘনায় ৫৫হাত লম্বা নৌকা ও দেশি-বিদেশি অস্ত্রসহ ৬ ডাকাত আটক রায়পুরে ২৫০ বিয়ারক্যানসহ যুবলীগ নেতা মিজান গ্রেফতার হেফাজতে ইসলামীর আমির আহমদ শফী মারা গেছেন রামপাল সুখবাসপুরে গ্যাস সিলিন্ডারের গোডাউনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড
ইউএনও ওয়াহিদার অবস্থার উন্নতি : শঙ্কামুক্ত নয়

ইউএনও ওয়াহিদার অবস্থার উন্নতি : শঙ্কামুক্ত নয়




দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমের গতরাতে অস্ত্রোপচারের পর আজ সিটি স্ক্যান রিপোর্ট শতভাগ ভালো এসেছে। চিকিৎসক ও স্বামীর সঙ্গে কথাও বলেছেন তিনি।

রাতেই জ্ঞান ফিরেছে ওয়াহিদার। বর্তমানে তাকে হাসপাতালের আইসিইউতে ৭২ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা।

শুক্রবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে তার সিটি স্ক্যান পরীক্ষা করা হয়। এ ব্যাপারে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালেঅর নিউরো ট্রমা বিভাগের প্রধান নিউরো সার্জন এবং গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন সেরা নিউজকে বলেন, ‘আল্লাহর রহমতে এখন পর্যন্ত তার সব প্যারামিটার খুবই ভালো। সিটি স্ক্যানের রিপোর্ট কেমন আসে সেটা নিয়ে দুশ্চিন্তা ছিল। খুবই ভালো খবর। তার সিটি স্ক্যানের শতভাগ ভালো রিপোর্ট এসেছে।’

তবে সিটি স্ক্যান রিপোর্ট শতভাগ ভালো এলেও এখনো শঙ্কামুক্ত নন ইউএনও ওয়াহিদা। এ বিষয়ে নিউরো সার্জন মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন বলেন, ‘ইউএনও ওয়াহিদার মাথায় অস্ত্রোপচার শেষে রাতেই অপারেশন থিয়েটার থেকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। রাতেই তার জ্ঞান ফিরে এসেছে। বর্তমানে আইসিইউতে পর্যবেক্ষণে রয়েছেন। আগের চেয়ে অবস্থার উন্নতি হলেও আমরা শঙ্কামুক্ত বলছি না।’

অন্যদিকে রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালের উপ-পরিচালক অধ্যাপক ডা. বদরুল আলম বলেছেন, ‘অস্ত্রোপচার শেষে রাতেই তার জ্ঞান ফিরেছে। এরপর তিনি তার স্বামীর সঙ্গে কথা বলেছেন। বর্তমানে তার হৃদস্পন্দন ও রক্তচাপ স্বাভাবিক আছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘তার স্বাস্থ্যগত সার্বিক পরিস্থিতির বিষয়ে এখনই সিদ্ধান্ত নেয়ার পর্যায়ে আসেনি। আরও পর্যবেক্ষণ শেষে মেডিকেল বোর্ড বসে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।’

‘শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) এ বিষয়ে আমাদের মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা বৈঠকে বসবেন। এরপর এ বিষয়ে চিকিৎসকরা পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবেন। পরবর্তীতে এ বিষয়ে আপনাদের জানানো হবে। তবে বর্তমানে ইউএনও ওয়াহিদার শারীরিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল রয়েছে’, বলেন হাসপাতালের উপ-পরিচালক।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাতে ৬ সদস্যের চিকিৎসক দল প্রায় দুই ঘণ্টার চেষ্টায় ইউএনও ওয়াহিদার মাথার জটিল অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করেন। অস্ত্রোপচার শেষে তাকে ৭২ ঘণ্টার পর্যবেক্ষণে রেখেছেন চিকিৎসকরা। তাৎক্ষণিকভাবে তার সেরে ওঠার বিষয়ে আশাবাদী হলেও তিনি এখনো শঙ্কামুক্ত নন বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

ওয়াহিদা খানমের মাথায় ভাঙা হাড়ের সাত-আটটি টুকরো অস্ত্রোপচারে জোড়া দিয়েছেন চিকিৎসকরা। আঘাতের কারণে আরও ছোট ছোট যে কাটা ছিল সেগুলোও রিপেয়ার করা হয় বলে বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাত ১২ টার দিকে অস্ত্রোপচার শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে জানান হাসপাতালের নিউরো ট্রমা বিভাগের প্রধান নিউরো সার্জন ও গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রধান মোহাম্মদ জাহিদ হোসেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা আশাবাদী কিন্তু এটা হেড ইনজুরির ব্যাপার। তার মাথার ভেতরে রক্তক্ষরণ হয়েছে এবং ব্রেনে আঘাত লেগেছে। ব্রেনের ওপর একটা চাপ ছিল, সেটা আমরা রিলিফ করেছি। তবে এখনই ক্লিয়ারলি আমরা বলতে পারব না যে, রোগী ভালো হয়ে যাবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ইট উইল টেক টাইম। অন্তত ৭২ ঘণ্টা আমরা তার পরিস্থিতি অবজারভ করব। আমরা আশাবাদী, রোগী ভালো হয়ে যাবে। বাকিটা আল্লাহ ভরসা।’

এর আগে রাত ৯ টার দিকে তাকে অস্ত্রোপচারের জন্য হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটারে নেয়া হয়। অপারেশন থিয়েটারে নেয়ার আগে তার সিটি স্ক্যান করা হয়েছে। প্রেশার চেক করে অবস্থা স্বাভাবিক থাকায় তার অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা।

চিকিৎসকরা জানান, দুর্বৃত্তের হামলায় ইউএনও ওয়াহিদার মাথার বাঁ দিকটা বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। মাথার কিছু অংশ ভেঙে ব্রেনে প্রেশার তৈরি করেছে। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সেটি অপসারণ করা গেলে অবস্থার উন্নতি হবে-এমন আশা থেকে তার অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা।

বুধবার (২ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে দুর্বৃত্তরা সরকারি আবাসিক ভবনে ঢুকে ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপাতে শুরু করে। এ সময় চিৎকারে তার সঙ্গে থাকা বাবা ছুটে এসে মেয়েকে বাঁচানোর চেষ্টা করলে দুর্বৃত্তরা তাকেও কুপিয়ে জখম করে। পরে অন্য কোয়ার্টারের বাসিন্দারা বিষয়টি টের পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

তাদের আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে ঘোড়াঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে রংপুরে পাঠানো হয়। ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে রংপুর ডক্টরস ক্লিনিকে আইসিইউতে ও তার বাবাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ওয়াহিদা খানমকে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় পাঠানো হয়।

এদিকে ইউএনও ওয়াহিদা খানম ও তার বাবাকে গুরুতর জখম করার অভিযোগে দুজনকে গ্রেফতার করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। হাকিমপুর, বিরামপুর ও ঘোড়াঘাট থানা পুলিশ এবং র‌্যাব রংপুর-১৩ এর একটি দল যৌথভাবে অভিযান চালিয়ে শুক্রবার ভোর ৪টা ৫০ মিনিটের দিকে হিলির কালিগঞ্জ এলাকায় বোনের বাড়ি থেকে আসাদুল ইসলামকে এবং জাহাঙ্গীর আলমকে তার নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারদের রংপুরে র‌্যাব-১৩ এর কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। গ্রেফতার জাহাঙ্গীর আলম (৪২) উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক এবং আসাদুল ইসলাম (৩৫) উপজেলা যুবলীগের সদস্য।

Print Friendly, PDF & Email

দয়া করে নিউজটি শেয়ার করুন...




Close(X)
Close(X)


Close(X)
Close(X)

সংবাদ খুজুন

ফেসবুক গ্রুপে যোগ দিনঃ

 
সেরা নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম – SeraNews24.Com ☑️
পাবলিক গোষ্ঠী · 23,009 জন সদস্য

গোষ্ঠীতে যোগ দিন

প্রতিমুহূর্তের সংবাদ পেতে Like দিন অফিশিয়াল পেইজ এ।
নিউজ পোর্টাল: www.SeraNews24.Com
ফেসবুক গ্রুপ: http://bit.do/SN24FBGroup
ইউটিউব চ্যানেল: http://bi…
 

ঢাকা, বাংলাদেশ।
মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
ওয়াক্তসময়
সুবহে সাদিকভোর ৪:৩৪
সূর্যোদয়ভোর ৫:৪৯
যোহরদুপুর ১১:৪৯
আছরবিকাল ৪:০৮
মাগরিবসন্ধ্যা ৫:৪৭
এশা রাত ৭:০৩







 About Us     Contact     Privacy & Policy     DMCA     Sitemap

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত | সেরা নিউজ টুয়েন্টিফোর ডটকম ২০১৮

Design & Developed By Digital Computer Center
error: Content is protected !!